1. admin@spicynews24.com : admin :
  2. nfjsduwdwdyu@gmail.com : mk tr : mk tr
এইমাত্র জাতির উদ্দেশ্যে জরুরী ভাষণে আবারো দুঃসংবাদ দিলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী -

এইমাত্র জাতির উদ্দেশ্যে জরুরী ভাষণে আবারো দুঃসংবাদ দিলেন মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী

  • আপডেটঃ সোমবার, ১১ জানুয়ারী, ২০২১
  • ৫ বার পঠিত

 

১৩ জানুয়ারি থেকে ২৬ জানুয়ারি পর্যন্ত আমরা আবার লোকডাউনে। নিচে মেনশন করা আছে কোন কোন এলাকা লোক ডাউন এর আওতায়। নিচের ছবিতে দেখে নিন কোন কোন এলাকায় লকডাউন জারি থাকবে তার তালিকা…

Image may contain: 1 person, text that says 'PERUTUSAN KHAS PERDANA MENTERI PELAKSANAAN PERINTAH KAWALAN PERGERAKAN ISNIN 6.00 PETANG 11 JANUARI 2021 Pelaksanaan Perintah Kawalan Pergerakan melibatkan: 1. Pulau Pinang 2. Selangor 3. WP Kuala Lumpur 4. WP Putrajaya 5. WP Labuan 6.Johor 7 Sabah 8. Melaka Berkuat kuasa 13 Januari 2021 sehingga 26 Januari 2021 lisKeselamatanNegar @MKNJPM YAB TAN SRI MUHYIDDIN YASSIN Majlis Keselamatan Negara (Rasmi) @mkn_rasmi'

 

পুরো ভাষণটি দেখুন নিচের ভিডিওতে… 

 

আরও পড়ুন : প্রবাসীদের সহযোগিতায় অবশেষে দেশে ফিরলেন মালয়েশিয়া থেকে অসুস্থ ফারুক

এক পা প্যারালাইজড হয়ে চলাচলে অক্ষম ও অসুস্থ মালয়েশিয়া প্রবাসী মোঃ ফারুক মিয়া(৩৯) তার স্ত্রী সন্তানদের কাছে ফিরতে চায়। এই শিরোনামে গত সপ্তাহে বিভিন্ন মিডিয়ায় একটি প্রতিবেদন প্রকাশিত হয়। সংবাদ প্রকাশের পর প্রবাসী বাংলাদেশিদের আর্থিক সহযোগিতায় ফারুক মিয়া বুধবার (৬ জানুয়ারি) BG 87 এর একটি ফ্লাইটে সকালে ঢাকায় পৌঁছেন। এসময় বিমানবন্দরে তার পরিবার তাকে গ্রহণ করেন। অসুস্থ ফারুক মিয়া ঢাকা কেরানীগঞ্জ থানার আকছাইন গ্রামের মৃত নুর মোহাম্মদ এর পুত্র। গত ৬ মাস যাবত তার ডান পা অবশ হয়ে যাওয়ায় তিনি কাজ কর্ম ও চলাফেরা করতে পারছেন না।

চিকিৎসায় তাঁর সমূদয় টাকা খরচ হয়ে গেছে। তার দেশে থাকা পরিবার দরিদ্র ও অসহায় এই মুহুর্তে ফারকের ব্যয়ভার বহন করতে পারছিলেন না। কিছু দিন আগে ধারদেনা করে তার পরিবার ৭০ হাজার টাকা পাঠালে সেই টাকা ইন্ডিয়ান তামিল ছিনতাইকারীরা পাসপোর্টসহ সব কেড়ে নিয়েছেন। তাকে দেশে ফেরত পাঠাতে যাবতীয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করতে ৩ হাজার মালয়েশিয়ান রিংগিত প্রয়োজন উল্লেখ্য পূর্বক সংবাদ প্রকাশের পর মালয়েশিয়ায় বসবাসরত প্রবাসীরা এগিয়ে আসেন এবং তাদের সামর্থ্য অনুযায়ী আর্থিক সহযোগিতা করে ফারুক মিয়াকে দেশে পাঠানোর ব্যাবস্থা করেন।

মোঃ ফারুক মিয়া তার ডান পা প্যারালাইজড হয়ে দীর্ঘদিন ধরে অসুস্থ হয়ে কুয়ালালামপুর কোতারায়া বাংলাদেশী মার্কেটের বারান্দায় থাকতো। সে ২০০৭ সালের কলিং ভিসায় মালয়েশিয়ায় আসেন। তিনি কনস্ট্রাকশন সেক্টরে কাজ করতেন। দেশে তার স্ত্রী এক ছেলে ও এক মেয়ে সন্তান রয়েছে। তার অসহায়ত্ব দেখে বাংলাদেশী প্রবাসী মোঃ শাহিন আলম সাময়িক ভাবে তাকে স্থান দেন।

তারপর ফারুকের জনয় টাকা কালেকশন ও যাবতীয় প্রক্রিয়া সম্পন্ন করেন বাংলাদেশী কমিউনিটি নেতা মোঃ জাহাঙ্গীর হাওলাদার এবং ন্যাশনাল ব্যাংক এনবিএল মানি ট্রান্সফার এর কর্মচারী মোঃ মাসুদুল আলম কাজল। এসময় সংশ্লিষ্ট প্রবাসীরা দাবি করেন দেশটিতে কর্মরত প্রবাসীরা অসুস্থ হয়ে পড়েন, দুর্ঘটনার শিকার হন এবং বিভিন্ন কারণে মারা যান। তাদেরকে যেন সরকারি তত্বাবধানে দূতাবাসের মাধ্যমে সহযোগিতা করা হয়। তাদের কোন হয়রানি ছাড়াই দেশে পাঠানোর ব্যাবস্থা করা হয়।

 

 

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর পড়ুন
© 2021 | All rights reserved by Spicy News
Customized BY Spicy News