1. admin@spicynews24.com : admin :
  2. nfjsduwdwdyu@gmail.com : mk tr : mk tr
সৌদি প্রবাসীদের জন্য ফাইনাল এক্সিটে ব্যাপক পরিবর্তন! -

সৌদি প্রবাসীদের জন্য ফাইনাল এক্সিটে ব্যাপক পরিবর্তন!

  • আপডেটঃ শুক্রবার, ৪ জুন, ২০২১
  • ৮ বার পঠিত

 

এবার সৌদি আরবের প্রবাসীদের জন্য ফাইনাল এক্সিটের ক্ষেত্রে নতুন আইন কার্যকর হতে যাচ্ছে। এখন থেকে যেসকল প্রবাসী সৌদি আরব থেকে ফাইনাল এক্সিট ভিসা নিয়ে নিজদেশে ফেরত যেতে চান, তাদেরকে ভিসার জন্য এপ্লিকেশন করার পূর্বে নিজেদের সকল প্রকার বকেয়া, দেনা এবং বিল পরিশোধ করতে হবে।

এছাড়াও তাদের নামে কোন যানবাহন রেজিস্ট্রিকৃত অবস্থায় রেখে যাওয়া যাবে না।সৌদি আরবের ডিরেক্টরেট জেনারেল অফ পাসপোর্ট, জাওয়াজাত থেকে জানানো হয়েছে, এখন থেকে ফাইনাল এক্সিটের আগে যে নিয়মগুলো মানতে হবে তা হচ্ছে,

১) যদি কোন প্রবাসী কর্মীর কোন ব্যক্তি বা প্রতিষ্ঠানের কাছে কোন দেনা থাকে বা বকেয়া থাকে, তবে তাকে ফাইনাল এক্সিট ভিসা দেয়া হবে না। এছাড়াও ভিসার জন্য এপ্লাই করার সময় প্রবাসীর নামে কোন যানবাহন এর রেজিস্ট্রেশন থাকতে পারবে না, এবং তার কোন বিল বকেয়া থাকতে পারবে না।

২) যদি অতীতে কারো নামে ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যু করা হয়ে থাকে, তবে তিনি পুনরায় ফাইনাল এক্সিট ভিসা পাবেন না। ইস্যু হবার দিন থেকে পরবর্তী ৬০ দিন পর্যন্ত ফাইনাল এক্সিট ভিসার মেয়াদ থাকে। যারা ফাইনাল এক্সিট ভসিয়ার জন্য এপ্লিকেশন করবেন এবং ভিসা ইস্যু হবে, তাদেরকে এই সময় এর মধ্যেই সৌদি আরব ত্যাগ করতে হবে। ফাইনাল এক্সিট ভিসার মেয়াদ বৃদ্ধি করা যাবে না। এছাড়াও সৌদি আরবের বাইরে অবস্থিত কেউ নিজের জন্য ফাইনাল এক্সিট ভিসার জন্য এপ্লাই করতে পারবেন না।

৩) ফাইনাল এক্সিট ভিসা গ্রহণ করার জন্য প্রবাসীকে কোন ফি দিতে হবে না। যদি ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যু হবার পরে প্রবাসী কর্মী দেশে ফিরে যেতে না চান, তবে স্পন্সর বা কফিল এর এবশের অথবা মুকিম এপ্লিকেশন এর একাউন্ট থেকে এপ্লিকেশন করে ফাইনাল এক্সিট ভিসা বাতিল করা হবে। ফাইনাল এক্সিট ভিসা বাতিল এর জন্য ১ হাজার রিয়াল জরিমানা প্রদান করতে হবে।

৪) যদি প্রবাসী কর্মী এক্সিট অনলি ভিসা দিয়ে সৌদি আরব ত্যাগ করেন, তবে তার এক্সিট ভিসা বাতিল করা যাবে না। তিনি যদি পুনরায় সৌদি আরবে প্রবেশ করতে যান, তবে তার জন্য নতুন করে এন্ট্রি ভিসা ইস্যু করতে হবে।

৫) ফাইনাল এক্সিট ভিসা পাবার জন্য অবশ্যই প্রবাসী কর্মীর পাসপোর্টে কমপক্ষে ৬০ দিন এর মেয়াদ থাকতে হবে। যদি পাসপোর্টে ৬০ দিন এর মেয়াদ না থাকে, তবে পাসপোর্টের মেয়াদ রিনিউ করতে হবে।

৬) ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যু হবার পরে কফিল কোন অবস্থাতেই কর্তৃপক্ষের কাছে প্রবাসী কর্মীর নামে “হুরুব” রিপোর্ট দায়ের করতে পারবেন না। যদি কফিল হুরুব রিপোর্ট দায়ের করতে চায়, তবে তাকে আগে ফাইনাল এক্সিট ভিসা বাতিল করে জরিমানা প্রদান করতে হবে, এবং তারপরে হুরুব রিপোর্ট দায়ের করতে হবে।

৭) নতুন নিয়ম অনুযায়ী প্রবাসী কর্মী যখন ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যু করবার জন্য অনুরোধ করবেন, তারপর থেকে মালিক বা চাকুরিদাতা ১০ দিন সময় পাবেন প্রবাসী কর্মীর ফাইনাল এক্সিট ভিসার অনুরোধটি এবং সবকিছু যাচাই করে দেখার জন্য। যদি ১০ দিন এর মধ্যেও মালিক বা চাকুরিদাতা কোনকিছু না জানান, তবে প্রবাসী কর্মী ফাইনাল এক্সিট ভিসা ইস্যু করতে পারবে, যার মেয়াদ ইস্যু করার দিন থেকে ১৫ দিন পর্যন্ত থাকবে।

নতুন এইসব নিয়মের ব্যাপারে সৌদি আরবের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, যদি কোন প্রবাসী কর্মী তার কাজের চুক্তির মেয়াদ থাকা অবস্থাতেও শর্ত ভঙ্গ করে ফাইনাল এক্সিট ভিসা নিয়ে সৌদি আরব ত্যাগ করে, তবে সে পুনরায় কখনো সৌদি আরবে প্রবেশ করতে পারবে না।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর পড়ুন
© 2021 | All rights reserved by Spicy News
Customized BY Spicy News