1. admin@spicynews24.com : admin :
  2. nfjsduwdwdyu@gmail.com : mk tr : mk tr
অবশেষে নদীগর্ভে তলিয়ে গেলো সাতক্ষীরার সেই আলোচিত মসজিদ -
শিরোনাম
পরীমণির মত শাহরুখের বাড়িতেও এই মুহূর্তে চলছে তল্লাশি ব্রেকিং: মালয়েশিয়ায় অভিবাসন বিভাগের অভিযান, ১৭২ বাংলাদেশি গ্রেফতার অনেক প্রবাসী পাসপোর্ট নিয়ে অবহেলা করেন। অথচ এই পাসপোর্ট ছাড়া তার…. হাত জোর করে কি বলছেন সানি লিওন? তুমি আমার এমন একটি অংশ স্পর্শ করেছো যা এখন পর্যন্ত আর কেউ পারেনি : প্রভা দীপিকা এমনভাবে অনুরোধ করেছিলো না করতে পারিনি: তাহসান স্বামীর সঙ্গে পরকীয়া, তরুণীকে প্রকাশ্যে জুতাপেটা স্ত্রীর অবশেষে মণ্ডপে পবিত্র কোরআন রাখা ব্যক্তির নাম পরিচয় জানা গেল সৌদি আরবে পৌঁছার ২ ঘণ্টা পরেই সাইদুর রহমানের মৃ’ত্যু সৌদির জেদ্দায় অবস্থানরত প্রবাসীদের জন্য জরুরী খবর

অবশেষে নদীগর্ভে তলিয়ে গেলো সাতক্ষীরার সেই আলোচিত মসজিদ

  • আপডেটঃ শুক্রবার, ৮ অক্টোবর, ২০২১
  • ৮৮ বার পঠিত

 

প্রবল জোয়ারে সাতক্ষীরার আশাশুনি উপজেলার খোলপেটুয়া নদীগর্ভে বিলীন হয়ে গেছে প্রতাপনগর গ্রামের ঐতিহ্যবাহী হাওলাদার বাড়ি বায়তুন নাজাত জামে মসজিদটি। শুক্রবার সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মসজিদটি খোলপেটুয়া নদীর ভাটার টানে ভেঙে পড়ে। এর আগে গত ১০ আগস্ট থেকে উপকূলীয় বাঁধ ভেঙে মসজিদে পানি প্রবেশ শুরু করে। এরপর থেকেই ঝুঁকিপূর্ণ ছিল মসজিদটি।

প্লাবিত এলাকায় পানি সাঁতরে মসজিদটিতে আযান ও নামাজ আদায় করতেন মসজিদের ঈমাম ও খতিব হাফেজ মঈনুর রহমান। এমন একটি ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়ার পর মানুষের হৃদয় আকৃষ্ট হয়। এলাকার মুসল্লিদের নামাজ আদায়ের জন্য গত মঙ্গলবার (৫ অক্টোবর) নৌকার উপর বিশেষভাবে নির্মিত একটি ভাসমান মসজিদ উপহার দেন আলহাজ্ব শামসুল হক ফাউন্ডেশন। সেখানে একত্রে ৫৫ জন মুসল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন।

স্থানীয় বাসিন্দা সায়েদুল ইসলাম জানান, গত দুই মাস ধরে আমরা মসজিদে নামাজ আদায় করতে পারিনি। পার্শ্ববর্তী বন্যতলা এলাকায় খোলপেটুয়া নদীর বাঁধ ভেঙে এলাকা প্লাবিত হয়। লোকালয়ের মধ্য দিয়ে নদীর জোয়ার ভাটা শুরু হয়। ভাঙনের কবলে পড়ে এলাকাও মসজিদটি। আজ একেবারেই বিলীন হয়ে গেল মুসলমানদের ইবাদতের ঘর মসজিদটি।ফজরের নামাজের পর যখন নদীতে ভাটা শুরু হয় সেই পানির টানে মসজিদটি ভেঙে পড়ে।

প্রতাপনগর হাওলাদার বাড়ি বায়তুন নাজাত জামে মসজিদের ঈমাম ও খতিব হাফেজ মঈনুর রহমান বলেন, ফজরের নামাজের পর মসজিদটি ভেঙে পড়েছে। অবকাঠামো একেবারেই বিলীন হয়ে গেছে। ধ্বংস স্তুপ হয়ে পড়ে রয়েছে। প্রতাপনগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান জাকির হোসেন জানান, ঘূর্ণিঝড় ইয়াসের সময় বন্যতলা বেড়িবাঁধটি ভেঙে যায়। এরপর থেকেই মানুষ পানিতে ভাসছে। পানি উন্নয়ন বোর্ডের গাফিলতির কারণে প্রতাপনগর ইউনিয়নটি ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। আজ জুমার দিন মসজিদটিও ভেঙে নদীতে চলে গেল।

সংবাদটি শেয়ার করুন

এই ধরনের আরও খবর পড়ুন
© 2021 | All rights reserved by Spicy News
Customized BY Spicy News